এলোভেরা চুলে ব্যবহারের নিয়ম - চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক

চুলের যত্নের জন্য গুরুত্বপূর্ন একটি ভেষজ উপাদান হলো এলোভেরা। চুলের যত্নে এ ভেষজ উপাদানটি খুবই কার্যকারী। তবে এটি ব্যাবহারে জানতে হবে সঠিক নিয়ম। তাই আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করবো এলোভেরা কিভাবে চুলে ব্যবহার করবেন এবং চুলের যত্ন নিতে এলোভেরা প্যাক কিভাবে বানাবেন।

এলোভেরা চুলে ব্যবহারের নিয়ম

এলোভেরা জেল চুলের স্বাস্থের জন্য খুবই উপকারি । কিন্তু এলোভেরা ব্যাবহারের সঠিক নিয়ম না জানার কারনে এলোভেরার উপকারিতা আমরা পাচ্ছিনা। তাই এলোভেরা চুলের যত্নে ব্যাবহার করলে অবশ্যই সঠিক নিয়ম জেনে ব্যবহার করতে হবে। আজকের আর্টিকেলটি পড়ে জেনে নিন চুলের যত্নে এলোভেরা ব্যবহারের নিয়ম  সম্পর্কে।

এলোভেরা চুলে ব্যবহারের নিয়ম

এলোভেরা একটি ভেষজ উদ্ভিদের নাম। এলোভেরা মধ্যে বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান যেমন-ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ক্রোমিয়াম, জিঙ্ক, সোডিয়াম, আয়রন, পটাশিয়া, ম্যাংগানিজ, কপার, ভিটামিন এ’, সি’, ই’, এবং ভিটামিন বি১’, বি২’, বি৩’, বি৬, ও ভিটামিন বি১২ রয়েছে, এছারাও প্রায় সব ধরনের অ্যামাইনো এসিড রয়েছে। এলোভেরাতে এত পুষ্টি উপাদান আছে বলেই এলোভেরার জুস বানিয়ে খেলে শরীরে বিভিন্ন পুষ্টির চাহিদা পূরণ হয়। এছারাও এলোভেরা গাছের পাতা থেকে জেল বের করে ত্বক ও চুলের যত্নে ব্যবহার করা হয়। এলোভেরা জেল দিয়ে বিভিন্ন প্রসাধনী সামগ্রী তৈরি করা হচ্ছে যা ত্বক ও চুলের স্বাস্থ ভালো রাখার জন্য খুবই উপকারী। তবে সে সমাগ্রীগুলো না কিনে, সরাসরি গাছ থেকে এলোভেরা পাতা এনে জেল বের করে চুলের যত্নে ব্যবহার করতে পারবেন। কিভাবে এলোভেরা জেল চুলে ব্যবহার করবেন জেনে নিন-

  • এলোভেরা পাতা থেকে জেল বের করে, সেই জেল সরাসরি চুলে ব্যবহার করে কিছুক্ষন রাখার পর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। চুলের স্বাস্থ ভালো থাকবে। 
  • নারিকেল তেল ও লেবুর রস এলোভেরা জেলের সাথে মিশিয়ে শ্যাম্পু করার মতো গোসলের সময় চুলে ব্যবহর করলে চুল সতেজ থাকে এবং খুশকি দূর হয়। 
  • এলোভেরা জেলের সাথে মধু ও টকদই ভালোভাবে মিশিয়ে চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত লাগিয়ে নিন। ৪০ মিনিট মতো রেখে ধুয়ে নিন চুলের উজ্জলতা বাড়বে এবং চুল মসৃন দেখাবে। 
  • আধা কাপ এলোভেরা জেল নিন এরপর তার সাথে ২ চা চামচ অলিভ অয়েল ও একটি ভিটামিন ই’ ক্যাপসুলের তেল ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এরপর মিশ্রনটি গরম করে নিন, গরম করার পর ঠান্ডা হতে দিন। ঠান্ডা হয়ে গেলে তুলার বল তাতে ডুবিয়ে চুলে লাগান ৩০ মিনিট পর্যন্ত রেখে ধুয়ে নিন। 
  • চুলের যত্ন নিতে মসুরের ডাল কিছুক্ষন ভিজিয়ে রাখুন এরপর ডালগুলো ব্লেন্ড করে তার সাথে এলোভেরার জেল মেশান। এরপর গোসলের ৪০ মিনিট আগে মিশ্রনটি চুলে দিয়ে, ৪০ মিনিট পর ধুয়ে নিন। চুল হবে ঝলমলে এবং মাথার খুশকি দূর হবে। 
  • মেহেদি পাতা বেটে তার সাথে এলোভেরা জেল মিশিয়ে ব্যাবহার করবেন, চুল পড়া কমবে। 
  • এলোভেরা জেলের মধ্যে পেঁয়াজের রস ও নারিকেল তেল দিয়ে, ভালোভাবে সবগুলো উপকরণ একসাথে মিক্স করে রাতে চুলে লাগিয়ে নিন। এরপর সকালে চুল ধুয়ে নিন চুল পড়া বন্ধ হবে এবং তার সাথে চুলের আরও বিভিন্ন সমস্যা দূর হবে।

উপরের নিয়মে এলোভেরা জেল ব্যবহার করবেন, এভাবে কয়েকদিন ব্যবহারের ফলে চুলের বিভিন্ন সমস্যা দূর হয়ে যাবে। 

আরো পড়ুন: স্থায়ীভাবে শ্যামলা ত্বক ফরসা করার উপায়

চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক

এলোভেরার মধ্যে বিভিন্ন ওষুধিগুন রয়েছে। ভেষজ চিকিৎসা শাস্ত্রে এলোভেরা গাছের বেশ কদর রয়েছে। চুলের ক্ষেত্রেও খুবই উপাকারি এ উদ্ভিদ। চুল নিয়ে সমস্যার শেষ নেয়, চুল পড়ে যায়, চুলে খুশকি, চুল রুক্ষ-শুষ্ক, চুল যেন বড় হতেই চায় না।  এরকম বিভিন্ন সমস্যার সামনে পড়তে হয় চুলের জন্য। এ সব ধরনের সমস্যা থেকে সমাধান পাওয়া যাবে এলোভেরা জেল দিয়ে। এলোভেরা জেল দিয়ে প্যাক বানিয় চুলের সমস্যা দূর করতে পারবেন আপনিও। তবে এর জন্য আপনাকে জানতে হবে কিভাবে চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক বানাবেন। জেনে নিন চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক বানানোর নিয়ম-

  • তিন চা চামচ এলোভেরা জেল নিয়ে তার সাথে দুই চা চামচ টকদই, এক চা চামচ মধু, এক চা চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে হেয়ার প্যাক বানিয়ে নিন। এরপর চুলে লাগিয়ে ৪০ মিনিট পর ধুয়ে নিন। এ প্যাকটি লাগানোর ফলে আপনার চুলের উজ্জলতা বাড়বে। 
  • এলোভেরা জেলের সাথে নারিকেল তেল, দারুচিনি, গোলমরিচ এসব উপাদান একসাথে মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করে নিন। এরপর মিশ্রনটি চুলায় ফুটিয়ে নিন, ঠান্ড হয়ে গেলে ছেঁকে নিয়ে এটি তেলের মতো করে চুলে ব্যবহার করবেন। চুলে পড়া কমে যাবে এবং চুল ঘন হবে। মিশ্রনটি বেশি করে বানিয় কয়েকদিনের জন্য বতুলে ভরে রাখতে পারেন, তাহলে প্রতিদিন আপনাকে বানাতে হবে না। 
  • এলোভেরা জেলের সাথে দুই টেবিল চামচ ক্যাস্টর অয়েল এবং একটি কাঁচা ডিম মিশিয় নিয়ে হেয়ার প্যাক বানিয়ে নিন। এবার প্যাকটি আপনার চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত লাগিয়ে শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে চুল ঢেকে ২০ মিনিট রাখতে হবে। ২০ মিনিট হয়ে গেলে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। 
  • পরিমাণ মতো এলোভেরা জেল নিয়ে তার সাথে দুই টেবিল চামচ মধু, দুই টেবিল চামচ সূর্যমুখীর তেল একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে হেয়ার প্যাক বানিয়ে নিন। এরপর এটি চুলে ভালোভাবে লাগিয়ে ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন, চুলের আগা ফাটা রোধ হবে। 
  • এলোভেরা জেলের সাথে দুই চা চামচ মেথি গুড়া ভালোভাবে মিশিয়ে হেয়ার প্যাক বানিয়ে নিন। এরপর চুলে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর ধুয়ে নিন, চুলকে ময়েশ্চাইরাইজার রাখবে। 
  • পরিমাণমতো এলোভেরা জেল নিয়ে তার সাথে জবাফুল দিয়ে তৈরি করা পেস্ট মিশিয়ে হেয়ার প্যাক বানিয়ে নিন। এবার চুলে ভালোভাবে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন, চুলের স্বাস্থ ভালো থাকবে। 
  • এলোভেরা জেলের সাথে দুই চা চামচ হেনা, দুই চা চামচ দই মিশিয়ে হেয়ার প্যাক বানিয়ে নিন। এবার হেয়ার প্যাকটি ভালোভাবে চুলে ম্যাসাজ করে, কিছুক্ষন পর ধুয়ে নিন। চুল পড়া কমবে এবং চুল হবে সুন্দর, মসৃন।

উপরের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করে হেয়ার প্যাক বানিয়ে নিন। সপ্তাহে অন্তত একবার করার চেষ্ট করবেন চুলের জন্য বিভিন্ন উপকার পাবেন।

এলোভেরা দিয়ে চুল সিল্কি করার উপায়

সুন্দর চুল সবার পচ্ছন্দের, সে ছেলে হোক কিংবা মেয়ে। চুলের সৌন্দর্য কয়েকগুন বৃদ্ধি পায় যদি চুল থাকে সিল্কি। চুল সিল্কি করার জন্য কত কিনায় করতে হয়, পার্লারেও যান অনেকেই। তবে এলোভেরা জেল দিয়ে বাড়িতে একটু সময় নিয়ে চুলের পরিচর্যা করলেই, আপনার চুল হবে সিল্কি ও নরম। সিল্কি চুল পেতে হলে বাড়তি যত্ন চুলকে দিতে হবে, সেটা নিশ্চয় বুঝতে পারছেন। এলোভেরা জেল দিয়ে বাড়িতে হেয়ার প্যাক বানিয়ে চুলে লাগালে আপনার চুল সিল্কি হবে। জেনে নিন এলোভেরা দিয়ে চুল সিল্কি করার উপায়। 

  • চুলে শ্যম্পু করার সময়, এলোভেরা জেল, শ্যাম্পু, চিনি, লেবু এসবগুলো উপাদান একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করে নিন। মিশ্রনটি চুলে লাগিয়ে ১০ মিটিট মতো রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে নিবেন, চুল সিল্কি দেখাবে। 
  • সিল্কি চুল পেতে এলোভেরা জেলের সাথে দুই চা চামচ অলিভ অয়েল, ভিটামিন ই’ ক্যাপসুল মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করে। মিশ্রনটি চুলে লাগিয়ে ১ ঘন্টা মতো রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। 
  • এলোভেরা জেলের সাথে ক্যাস্টর অয়েল ভালোভাবে মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করে নিন। এরপর মিশ্রনটি চুলর স্ক্যাল্প এবং চুলে ভালোভাবে লাগিয়ে। এ মিশ্রনটি রাতে লাগাবেন এবং পরদিন শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিবেন। 
  • সিল্কি চুলের জন্য, আপনার চুল অনুযায়ী  এলোভেরা জেল ও টকদই নিয়ে একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে চুলে এবং স্ক্যাল্পে ব্যবহার করুন। 
  • সিল্কি চুল পেতে চাইলে এলোভেরা জেলের সাথে আমলকির রস ভালোভাবে মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে কিছুক্ষন রেখে ধুয়ে নিন।

উপরের নিয়মে এলোভেরা ব্যবহার করলে আপনার চুল সিল্কি হবে। এছারাও সিল্কি চুল পেতে শুধু এলোভেরা জেল চুলে লাগাতে পারেন।

আরো পড়ুন: চোখের নিচের কালো দাগ দূর করার উপায়

এলোভেরা দিয়ে চুল বড় করার উপায়

চুল বড় ও লম্বা হোক সব মেয়েদের চাওয়া। চুল পড়ার সমস্যা কমবেশি সবার হয়ে থাকে। বিভিন্ন কারনে চুল পড়ে, চুল অপরিষ্কার থাকলে এবং অনেকেই আছে চুলের সঠিক যত্ন নেই না, যার ফলে চুল পড়ে যায় এবং চুল বাড়ে না। লম্বা চুল পেতে হলে চুলের সঠিক যত্ন নিতে হবে। আর লম্বা চুল পেতে, চুলের যত্নে নিতে পারেন এলোভেরা। এলোভেরা দিয়ে ঘরে বসেই আপনি বিভিন্ন হেয়ার প্যাক বানিয়ে চুলে লাগাতে পারেন যার ফলে চুল পড়া কমবে এবং চুল লম্বা হবে। জেনে নিন এলোভেরা দিয়ে চুল বড় করার উপায়। 

  • একটি পাত্রে এলোভেরা জেল, ক্যাস্টর অয়েল, মেথির গুড়ো এ তিনটি উপাদান পরিমাণমতো নিয়ে ভালোভাবে একসাথে মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করে নিন। এরপর মিশ্রনটি রাতের বেলা চুল ও স্ক্যাল্পে ভালোভাবে লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন। সারারাত রেখে দিয়ে সকালে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল পড়া কমবে এবং চুল বড় হবে। 
  • এলোভেরা জেল, অলিভ অয়েল আরা ডিমের কুসুব এ উপাদানগুলো একটি পাত্রে নিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করে নিন। এরপর মিশ্রনটি স্ক্যাল্পে ও চুলে ভালোভাবে লাগিয়ে ৪০ মিনিট মতো রেখে ধুয়ে নিন। এটি সপ্তাতে দুইদিন করবেন দেখবেন চুল পড়া কমে গেছে এবং চুল বড় হচ্ছে। 
  • দুই চা চামচ এলোভেরা জেল এবং দুই চা চামচ হলুদ গুড়ো একটি পাত্রে নিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করে নিন। এরপর মিশ্রনটি চুলে লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন এবং ম্যাসাজ হলে ৪০ মিনিট মতো রেখে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন চুল পড়া কমবে এবং চুল বড় হবে। 
  • আপনার জানেন কি? কফি চুলের জন্য কতটা উপকারি। এই উপকারি উপাদানটি এলোভেরার জেলের সাথে মিশিয়ে চুলে লাগালে অনেক দ্রুত চুল পড়া কমায় এবং চুল বড় হয়। 
  • এলোভেরা জেলের সাথে  দুই চা চামচ আমলকির রস, দুই চা চামচ টকদই ভালোভাবে সবগুলো উপকরণ একসাথে মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি  করে নিন। মিশ্রনটি চুলের স্ক্যাল্পে ও চুলে ভালোভাবে লাগিয়ে ৪০ মিনিট মতো রেখে ধুয়ে নিন। কয়েকদিনের মধ্যে চুল পড়া কমে যাবে এবং চুল বড় হবে। 
  • এলোভেরা জেলের সাথে পাকা পেঁপের রস ও অলিভ অয়েল ভালোভাবে মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করে নিন। মিশ্রনটি চুলে লাগিয়ে ২০ মিনিট মতো রেখে ধুয়ে নিন চুল পড়া কমে যাবে। 
  • এলোভেরা জেলের সাথে পুদিনা পাতার রস ও আমলকির রস ভালোভাবে মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করে নিবেন। মিশ্রনটি চুলে ও স্ক্যাল্পে ভালোভাবে লাগিয়ে ৩০ মিনিট মতো রেখে ধুয়ে নিন। চুল পড়া কমে যাবে এবং চুল লম্বা হবে। 
  • মেহেদি পাতা ও এলোভেরা এ দুই প্রাকৃতিক উপাদান চুলের স্বাস্থের জন্য উপকারি। লম্বা চুল ও স্বাস্থজ্জল চুল পেতে হলে মেহেদি পাতা ব্লেন্ড করে তার সাথে এলোভেরা জেল মিশিয়ে চুলে লাগাবেন। তবে যাদের ঠান্ডার সমস্যা আছে এ পদ্ধতি এরিয়ে চলায় ভালো। 

চুলের স্বাস্থ ভালো রাখতে পাশাপাশি চুল পড়া কমিয়ে, চুল লম্বা বা বড় করে এলোভেরা। তাই লম্বা চুল পেতে উপরের নিয়মগুলো অনুসরণ করে চলবেন।

চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক

এলোভেরা ও লেবু দিয়ে চুলের যত্ন

এলোভেরা ও লেবু এ দুটি উপাদান চুলের স্বাস্থের জন্য বেশ উপকারি।  প্রথমেই আসি এলোভেরা, এলোভেরা বহুগুন  সম্পন্ন ভেষজ ওষধি উদ্ভিদ। এতে বিভিন্ন উপকারি উপাদান রয়েছে যা শরীরের জন্য উপকারিসহ ত্বক ও চুলের যত্নে অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ন। এলোভেরা মধ্যে রয়েছে মেনাস, ল্যাকটিন, পলিস্যাকারাইড এবং প্রচুর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে যা চুলের বিভিন্ন সমস্যা যেমন- চুল ভেঙে যাওয়া, চুলের আগা ফাটা, চুল পড়ে যাওয়া, চুলের খুশকি, চুল রুক্ষ-শুষ্ক হয়ে যাওয়া এসব সমস্যার সমাধান করে। এলোভেরার জেল চুলে ব্যবহার করলে  চুলের বিভিন্ন সমস্যা দূর করে চুলকে হাইড্রেটিং, ঝলমলে, সিল্কি এবং লম্বা করে।

এবার আরেকটি প্রাকৃতিক উপাদান চুলের জন্য উপকারি, লেবু নিয়ে বলা যাক। লেবুর রস চুলে ব্যবহারে চুলের স্বাস্থ সবসময় ঠিক থাকে। টুকরো করা লেবু মাথার ত্বকে ঘষলে চুলের খুশকি দূর হবে, এছারাও তৈলাক্ত চুলের যত্নে, চুল পড়া কমাতে, চুলের আগা ফাটা দূর করতে লেবুর রসের জুরি মেলা ভার। এসব বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে চুলকে ঝলমলে, সুন্দর ও আকর্ষনীয় করে তোলে। হেয়ার প্যাক হিসেবে লেবুর রসের অসংখ্যা গুনাগুন রয়েছে।

এলোভেরা ও লেবুর মিশ্রনে এ উপাদনগুলোর গুনাগুন আরও বেড়ে যায়। তাই এ দুটি উপাদান দিয়ে হেয়ার প্যাক বানিয়ে চুলে নিয়মিত ব্যবহার করবেন চুলের বিভিন্ন সমস্যা থেকে সমাধান পাবেন।

চুলের বিভিন্ন সমস্যা আপনাদের সামনে আলোচনা করলাম। অন্তত সপ্তাতে দুইদিন এলোভেরা দিয়ে হেয়ার প্যাক বানিয়ে চুলে ব্যবহার করবেন। তবে অ্যালোভেরার মধ্যে এত উপকারি গুন থাকা সত্ত্বেও, অ্যালোভেরা ব্যবহারের আগে অবশ্যই সতর্ক থাকবেন। কারণ অনেকের ক্ষেত্রে অ্যালোভেরাতে অ্যালার্জি হতে পারে। অ্যালার্জি থেকে মাথার ত্বকে বিভিন্ন র‌্যাশ বের হয়ে, চুলকানি ও জলনের সৃষ্টি হতে পারে। তাই অ্যালার্জির সমস্যা হলে এলোভেরা এড়িয়ে চলা ভালো।

আরো পড়ুন: মুখের ব্রন দূর করার উপায় - ব্রন দূর করার ক্রিম

লেখকের শেষ বক্তব্য

এলোভেরা চুলে ব্যবহারের নিয়ম - চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক সম্পর্কে আজকের এই ব্লগে সকল তথ্য তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আশা করি এলোভেরা চুলে ব্যবহারের নিয়ম - চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক সম্পর্কে আপনি বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।

এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। যদি আপনি এই ধরনের প্রয়োজনীয় বিভিন্ন ব্লগ পোস্ট নিয়মিত পড়তে চান তাহলে আপনাকে প্রতিনিয়ত আমাদের এই ওয়েবসাইট ফলো করতে হবে।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন