ভালো মানুষ চেনার উপায় - খারাপ মানুষ চেনার উপায়

পৃথিবীতে দুই ধরনের মানুষ রয়েছেন। ভালো মানুষ ও খারাপ মানুষ। ভালো ও খারাপ এ দুটি বিষয় নিয়ে পৃথিবী সৃষ্টি করা হয়েছে। জীবনে চলার পথে আপনি খারাপ ও ভালো দুই মানুষের সাথেই পরিচিত হবেন। তবে আমরা অনেকেই জানিনা ভালো মানুষ কারা এবং খারাপ মানুষ কারা। তবে আমাদের চলার পথে অবশ্যই ভালো ও খারাপ মানুষ যাচাই করে নিতে হবে, চিনে নিতে হবে ভালো ও খারাপ মানুষ কোনগুলো । যারা ভালো ও খারাপ মানুষে পার্থক্য খুঁজে বের করতে পারছেন না। তাদের জন্য আজকের আর্টিকেলটি। আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করবো ভালো মানুষ ও খারাপ মানুষ সম্পর্কে।

ভালো মানুষ চেনার উপায়

জন্ম থেকে মানুষ ভালো ও খারাপ হয় না। পরবর্তীতে মানুষ ভালো ও খারাপে রূপান্তরিত হয়। জীবনে আমাদের চলার পথে অবশ্যই মানুষ চিনে চলতে হবে। বিভিন্ন কাজের ক্ষেত্রে আমাদের মানুষের সাথে চলতে হয়। খারাপ মানুষ আমাদের অনেক সময় বড় কোনো বিপদে ফেলে দিতে পারে। তাই বাস্তব জীবনে আমাদের মানুষ চিনেতে হবে। মানুষ চিনা খুব একটা সহজ কাজ নয়। তবুও আজকের আর্টিকেলটি পড়লে আপনি ভালো ও খারাপ মানুষ চিনতে পারবেন। চলুন তাহলে শুরু করা যাক ভালো মানুষ চেনার উপায় ও খারাপ মানুষ চেনার উপায় কি।

ভালো মানুষ কাকে বলে

মানুষের মধ্যে ভালো মন্দ দুটি দিকই রয়েছে। ভালো ও খারাপ নিয়েই মানুষ। একটা মানুষের মধ্যে ভালো ও মন্দ দুটো দিকই থাকে। প্রায় দেখবেন একটা মানুষ, তার মধ্যে অনেক ভালো গুন আছে কিন্তু পরবর্তীতে সে খারাপ হয়ে যাচ্ছে। আবার অনেকেই খারাপ থেকে ভালো হচ্ছে। তাই ভালো মানুষ কারা, কাকে ভালো মানুষ বলবো এটা বলা খুব কঠিন। অনেকেই আবার মনে করে থাকেন যার মধ্যে খারাপ গুন থাকলেও ভালো গুন বেশি রয়েছে সে ভালো মানুষ। তবে এ ধরনের মানুষকে ভালো মানুষ বলা যাবে না।

ভালো মানুষ চেনা কঠিন হলেও এমন কিছু মানুষ আছে যাদেরকে ভালো মানুষ বলা যায়। ভালো মানুষের বেশ কিছু সংজ্ঞা আছে। কেউ ভালো মানুষের সংজ্ঞা দিতে গিয়ে বলেন- যে ব্যক্তি নিজেকে মূল্য দেয় এবং অন্য কেউ সমানভাবে মূল্য দেয় সেই ভালো মানুষ। কেউ বলে থাকেন- যার মধ্যে মিথ্যার কোনো জায়গা নেই , সে ভালো মানুষ। আবার কেউ বলেন ভালো মানুষতো তারা যারা অন্যের উপকার করে, অপকার করে না।

ভালো মানুষের সুন্দর একটি সংজ্ঞা হলো- যে মানুষের মাধ্যমে কোনোদিন কেউ ক্ষতিগ্রস্থ হয় নি, তিনিই ভালো মানুষ। একজন মানুষ, যে অন্য একজন মানুষের কখনও ক্ষতি করার চিন্তা করেনা, কাউকে কোনোদিন ঠকায় না এবং প্রতিজ্ঞা রক্ষা করে সে প্রকৃত ভালো মানুষ।

ভালো মানুষ চেনার উপায়

বর্তমানে ভালো মানুষ চেনা কঠিন, তবে অসম্ভব নয়। ভালোভাবে লক্ষ্য করলে ভালো মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে। যদি আপনি ভালো মানুষ চিনতে চান তাহলে যাদের মধ্যে খারাপ গুন আছে তাদের সাথে ভালো মানুষের পার্থক্য বের করতে হবে। একজন ভালো মানুষের মধ্যে বেশ কিছু বৈশিষ্ট প্রকাশ পায়, যেগুলো দেখলে আমরা ভালো মানুষ কে চিনতে পারবো।  ভালো মানুষ চিনতে যেসব বৈশিষ্ট থাকে, সেসব আপনাদের সামনে আলোচনা করা হলো। 

  • একজন ভালো মানুষের প্রথম গুন হলো সে কখনই মিথ্যা কথা বলবে না। সবসময় সত্যের পথে থেকে চলা ফেরা করবে। তারা জীবনের প্রতিটা কাজে সৎ থাকবে। 
  • সততা হলো একজন ভালো মানুষের আরেক গুন। কারও মধ্যে সততার গুন থাকলে তাকে ভালো মানুষ বলা যায়। তবে অনেক খারাপ মানুষ আছে যারা সততার রূপ দেখিয়ে, প্রতারনা করে। তাই খুবই সতর্ক হয়ে ভালো মানুষ চিনতে হবে। 
  • ইসালামি মতে- যে মানুষকে দেখলে মহান আল্লাহর কথা স্মরন হয় সে মানুষটি প্রকৃত ভালো মানুষ।
  • সহমর্মিতার গুন ভালো মানুষের একটি বৈশিষ্ট। ভালো মানুষেরা অন্যের দুঃখে কষ্ট পায় এবং অন্যের খারাপ সময়ে পাশে থাকে। বিপদের সময়ে অন্যের পাশে থাকতে পেয়ে ভালো মানুষেরা নিজে আনন্দ পায়। 
  • একজন ভালো মানুষ অন্যের উপকার করতে ভালোবাসে, কখনই কারও অপকার করে না। 
  • ভালো মানুষেরা কখনও কাউকে ঠকায় না, কোনোদিন কারও ক্ষতি করার কথা ভাবে না। কারও দেওয়া কথার খিয়ানত করেনা।
  • ধৈর্যশীলতা ভালো মানুষের চরিত্রে থাকবে। একজন ধৈর্যশীল মানুষ বিপদে, কঠিন সময়ে সবসময় ধৈর্য ধারন করে।
  • একজন ভালো মানুষ সবসময় ধর্মকে বিশ্বাস করবে। ধর্মের রীতিনীতি পালন করে চলবে।
  • পরনিন্দা থেকে সবসময় দূরে থাকবে একজন ভালো মানুষ। তার চলাফেরা ও কথাবার্তা হবে নম্র-ভদ্র।
  • একজন ভালো মানুষ কখনও অহংকার করে না। জীবনে সফল হলে সেটা নিয়ে কখনও অহংকার করে না। বরং স্রষ্টার কাছে শুকরিয়া আদায় করে।
  • একজন ভালো মানুষ যেমন বাইরের মানুষের সাথে ভালো আচরন করবে ঠিক ভাবে পরিবারের লোকের সাথেও ভালো ব্যবহার করবে।

উপরে বলা গুনগুলো ছাড়াও একজন ভালো মানুষের মধ্যে সবধরনের ভালো চারিত্রিক গুন থাকবে। যারা প্রকৃত ভালো মানুষ তাদের মধ্যে কোনো ধরনের খারাপ গুন থাকবে না।

আরো পড়ুন: রাতে ঘুমানোর সঠিক সময় কখন - কত ঘন্টা ঘুমানো উচিত

খারাপ মানুষ চেনার উপায়

জীবনে চলার পথে অনেক মানুষের সাথে আমাদের আলাপ হয়। সেই মানুষগুলোর মধ্যে ভালো ও খারাপ দুই ধরনের থাকে। খারাপ মানুষেরা এক মুখোশধারি শয়তান। তাদের বাইরে এক রূপ থাকে আর ভিতরে এক রূপ। আমাদের চলার পথে প্রকাশ্যে ও গোপনে খারাপ মানুষেরা বাধার সৃষ্টি করে থাকে। তাই খারাপ মানুষকে আমাদের চিনে রাখতে হবে। এমন কিছু লক্ষন আছে যেগুলো দ্বারা আমরা সহজেই খারাপ মানুষকে চিনতে পারবো। চলুন সে লক্ষনগুলোর মাধ্যমে খারাপ মানুষ চেনার উপায় জেনে নিই। 

  • খারাপ মানুষেরা সবসময় অন্যের খারাপ চায়, কখনও অন্যের ভালো হওয়া দেখতেই পারবে না।
  • খারাপ মানুষেরা অন্যকে কষ্ট দিয়ে নিজে আনন্দ পায়। অন্যের দুঃখ, কষ্ট দেখে খুশি হয়।
  • সবসময় মিথ্যা কথা বলে বেড়াবে খারাপ মানুষেরা। কখনও সত্য কথা বলবেনা এবং অন্যের কোনো গোপন কথা সবার সামনে বলবে।
  • অহংকার করে কথা বলে। খারাপ মানুষের কথার মধ্যে অহংকারের ছাপ পাওয়া যায়।
  • তাদের চলাফেরা, আচার-আচরন অশ্লীল হবে। 
  • মানুষকে তারা ধোকা দেবে এবং কারো দেওয়া কথা প্রত্যাখান করবে।
  • মানুষকে ভয় দেখিয়ে যারা সম্মান আদায় করতে চায় তারা খারাপ মানুষ। 
  • সত্য মিথ্যা যাচাই না করে কথা বলে।
  • নিজের স্বার্থ আগে দেখে খারাপ মানুষেরা।
  • অল্পতেই রেগে যায় এবং মানুষকে আঘাত দিয়ে কথা বলে। 
  • পরনিন্দা করা খারাপ মানুষের একটি লক্ষন।
  • খারাপ মানুষেরা ভুল করবে কিন্তু ক্ষমা চাইবে না।
  • খারাপ মানুষের কথার কোনো দাম থাকেনা এবং অন্যকে মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেয়।
  • অন্যের প্রতিভাকে তুচ্ছ করে দেখে খারাপ মানুষেরা।
  • খারাপ মানুষেরা অন্যের বিশ্বাসের দাম দেয় না। অন্যের কোনো গোপন কথা আপনার সামনে বলবে এবং আপনার কথা অন্যের সামনে বলবে।
  • খারাপ মানুষের মধ্যে দায়িত্ব ও কর্তোব্যবোধ থাকবেনা। তারা সবসময় দায়িত্ব থেকে সরে আসবে।
  • খারাপ মানুষেরা অসৎ উপায়ে উপর্জন করে। কখনই সৎ পথে চলার চেষ্টা করে না।
  • কাজ ক্ষেত্রে অজুহাত দেখায় খারাপ মানুষেরা।

উপরের লক্ষনগুলো দিয়ে আপনি খারাপ মানুষ চিনতে পারবেন। খারাপ মানুষ চিনতে হলে আপনাকে খুবই সতর্ক হতে হবে। আপনার পরিচিত মানুষেরাও খারাপ হতে পারে। খারাপ মানুষকে চেনার চেষ্টা করুন এবং এদেরকে বুঝিয়ে বলবেন। খারাপ মানুষেরা কখনও ভালো থাকতে পারে না। তারা স্রষ্টার কাছেও ভালো হয় না।

আরো পড়ুন: কীভাবে ওজন কমানো যায় - ওজন কমানোর ব্যায়াম

সহজ সরল মানুষ চেনার উপায়

আমাদের চারপাশে বিভিন্ন ধরনের মানুষ আছে। এমন কিছু মানুষ আছে যারা সহজ সরল ও নির্ভেজাল আবার অনেক মানুষ আছে তারা কঠোর হয়। সহজ সরল মানুষের মধ্যে আলাদা গুন রয়েছে, যেগুলো দ্বারা আমরা সহজ সরল মানুষদের চিনতে পারবো।

সহজ সরল মানুষদের কথা বার্তা ও চলাফেরাই নম্র-ভদ্র। এরা সাধারন ভাবে চলাফেরা করবে। তারা সবসময় সৎ পথে যাবে, অসৎ পথে কখনই যাবে না। খারাপ সময়েও তারা সৎ পথ থেকে সরে আসবেনা। তারা বড়দের সম্মান করবে, বড়দের কথা শুনে চলার চেষ্টা করবে।

সহজ সরল মনের মানুষেরা কখনও অহংকার করে না। তাদের আচার ব্যবহারে সবসময় অহংকার মুক্ত। তারা জীবনে সফল হলেও সেটা নিয়ে অহংকার করে না। বরং সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। কারও সামনে নিজেকে বড় বলে মনে করে না। অন্যের সামনে উঁচু গলায় কথা বলে না, নম্রতার সাথে কথা বলে।

অন্যাই কাজ করলে তারা সহজেই স্বীকার করে নেয়। কেউ যদি তাদের সাথে অন্যায় কাজ করে, তাহলে তাদের অন্যায়কে ক্ষমা করে দেয়। মানুষকে সাহায্য করা তাদের একটা বিশেষ গুন। অন্যের কষ্টে তাদের পাশে সবসময় থাকে। কখনই অন্যের ক্ষতি করার কথা ভাবে না। 

ভালো মানুষের বৈশিষ্টগুলো সহজ সরল মানুষদের মধ্যে প্রকাশ পায়। আমরা অনেকেই সহজ সরল মানুষকে চিনতে পারি না। সহজ সরল মানুষকে বোকাদের তালিকায় ফেলে দিই। কিন্তু একজন সরল ও বোকা মানুষের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। সরল মানুষেরা, সরল হলেও বিচারবুদ্ধি সম্পন্ন হয়ে থাকে। তবে কিছু মানুষ আছে যারা সরল ও বোকা হয়ে থাকে। তবে একটু ভেবে দেখলেই সহজ সরল ও বিচারবুদ্ধি সম্পূর্ন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে।

সহজ সরল মানুষ সবার পচ্ছন্দের, তাদের মধ্যে কোনো জটিলতা থাকে না। প্রত্যেক মানুষেকে সহজ সরল হওয়া উচিত, তবে বোকা হওয়া উচিত নয়।

লেখকের শেষ বক্তব্য

ভালো মানুষ চেনার উপায় - খারাপ মানুষ চেনার উপায় সম্পর্কে আজকের এই ব্লগে সকল তথ্য তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আশা করি ভালো মানুষ চেনার উপায় - খারাপ মানুষ চেনার উপায় সম্পর্কে আপনি বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।

এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। যদি আপনি এই ধরনের প্রয়োজনীয় বিভিন্ন ব্লগ পোস্ট নিয়মিত পড়তে চান তাহলে আপনাকে প্রতিনিয়ত আমাদের এই ওয়েবসাইট ফলো করতে হবে।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন